করলার উপকারিতা

করলা বা উচ্ছে খেতে খুব তেতো কিন্তু করলার উপকারিতা এবং রোগ সারাবার গুনাগুন অনেক। বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ করতে উচ্ছের উপকারিতা বা করলার পুষ্টিগুণ জেনে নিন।

আরও পড়ুন: কালোজিরার গুনাগুন

করলা ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য খুব উপকারী। নিয়মিত করলার রস পান করলে রক্তের সুগার নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

বয়স কমাতে বা বার্ধক্য আটকাতে করলা খাবেন। কারন করলায় আছে ভিটামিন A এবং ভিটামিন C এবং এন্টি অক্সিডেন্ট।

ক্রিমি নিয়ন্ত্রন করার জন্য করলা সবচেয়ে উপকারী। রক্ত পরিষ্কার রাখতে এবং রক্তের জীবাণু দূর করতে করলা খাবেন। চর্ম রোগ যেমন চুলকানি পাঁচড়া দূর করতেও করলা খাবেন।

করলা রক্তের চর্বি কমাতে ওস্তাদ। রক্তচাপ কমাতে করলা খাবেন। ম্যালেরিয়া জ্বর হলে রোগীকে করলা খেতে দিবেন। দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে। হিপাটাইটিস এ, ফ্লু এবং হারপিস ভাইরাস দূর করতে করলা কার্যকারী।

গবেষকরা বলেন করলা ক্যান্সাররোধী খাবার। করলা খেলে লিভার ক্যান্সার, মেলানোমা এবং লিউকেমিয়া রোগের প্রতিরোধ হবে।

আরও পড়ুন: হলুদের উপকারিতা

কোষ্ঠ কাঠিন্য দূর করতেও তেতো করলা খুব কার্যকারী। করলা রক্তে হিমোগ্লোবিন তৈরি করতে উপকারী। আয়রনের ঘাটতি পূরণ করতে করলা খাবেন, কারন করলাতে প্রচুর পরিমাণে আয়রন রয়েছে।

দেহের অতিরিক্ত টক্সিন বের করতে করলা পাতার রস খাবেন। করলায় আছে ভিটামিন C, এজন্য ত্বক এবং চুল ভালো রাখতে করলা খাবেন।

করলার মধ্যে আছে বিটা ক্যারোটিন এটি আমাদের চোখের সমস্যা সমাধানে এবং দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখতে দারুণ উপকারী।

বাতরক্ত দূর করতে করলা খুবই উপকারী। ৪ চামচ করলা বা উচ্ছে পাতার রস হালকা গরম করে এর সাথে ১ চামচ গাওয়া ঘি মিশিয়ে ভাতের খাবেন। বাত রক্ত দূর হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন: পটলের উপকারিতা

Photo Credit: YouTube

মন্তব্য
Loading...
error: Content Is Protected !!