জগিং এর উপকারিতা

ভোরের চমত্কার আলো এবং মুক্ত বাতাস জগিং করার জন্য আরামদায়ক। ঘুম ছেড়ে উঠে পড়া একটু কষ্টকর হলেও জগিং এর উপকারিতা অনেক। ভোরের বাতাসে হাঁটলে শরীরের সঙ্গে মন ও সতেজ হয়। জগিং করার উপকারিতা সম্পর্কে ত্বক, লেজার এন্ড এসথেটিক বিশেষজ্ঞ ডা. সঞ্চিতা বর্মন কিছু তথ্য দিয়েছেন যা আপনাকে নিয়মিত জগিং করতে উদ্বুদ্ধ করবে।

আরও পড়ুন: সকালে কাঁচা ছোলা খাওয়ার উপকারিতা কি

নিয়মিত জগিং শরীরের বাড়তি ওজন কমাতে দারুণ উপকার করে। মাংসপেশী ও হাঁড় শক্তিশালী করে, শরীরে রক্ত সঞ্চালন বাড়িয়ে দেয়। রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ রাখে ফলে ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য এটা খুবই দরকার। ফুসফুসের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে এবং হূদরোগের ঝুঁকি অনেক কমিয়ে দেয়।

নিয়মিত হাঁটাচলা বা ব্যায়াম শরীরে এনডোরফিন হরমোন নি:সরণ বাড়িয়ে দেয় যেটা শরীরের ব্যথা কমিয়ে দেয়। এটা মুখের রুচি বাড়িয়ে দেয় এবং মন সতেজ রাখে পাশাপাশি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। এজন্য বাতের ব্যথায় আক্রান্ত রোগীদের জন্য জগিং খুব উপকারী।

এছাড়া স্নায়ুবিক দুর্বলতা এবং বিষণ্নতা কাটাতে জগিং সাহায্য করে। শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় বলে সৌন্দর্য বাড়াতে ও দ্রুত বার্ধক্য রোধ করতে এর স্বাস্থ্যগুণ অতুলনীয়।

আরও পড়ুন: সকালে খালি পেটে রসুন খাওয়ার উপকারিতা

সপ্তাহে ৫ দিন ৩০ মিনিট করে জগিং করলে খাদ্যনালী, ফুসফুস, স্তন ও প্রোস্টেট ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে যায় বলে জানিয়েছে আমেরিকান ক্যান্সার সোসাইটি।

তাই করা দরকার বা শুরু করতে হবে বলে সময় নষ্ট না করে আজ থেকেই জগিং করার অভ্যাস তৈরি করুন। নিয়মিত জগিং করে আপনার মূল্যবান শরীর সুস্থ রাখুন।

ছবি সূত্র: ইন্টারনেট

আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল আইডি প্রচার করা হবে না। কোন মন্তব্যে স্প্যাম লিংক/রেফারেল লিংক থাকলে সেটা প্রকাশ করা হবে না।

thirty eight + = forty four