আখের রসের উপকারিতা

গরমে এক গ্লাস আখের রস খেলেই ক্লান্তি চলে যায়। আখের রসকে এজন্য প্রাকৃতিক এনার্জি ড্রিঙ্ক বলা হয়। ত্বকের জন্যও এর গুনাগুন অনেক। শরীরের জন্য আখের রসের উপকারিতা কি নিচে বর্ণনা করা হল।

খেতে মিষ্টি হলেও আখের রস ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য অনেক কার্যকরী। জিআই এর পরিমাণ খুবই কম থাকে বলে ডায়াবেটিস রোগীরা নিয়মিত আখ বা আখের রস খেতে পারেন।

আরও পড়ুন: আলুর খোসার উপকারিতা

আখের রসের উপকারিতাগুলো জেনে নিন

ওজন কমাতে
আখের রসে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার আছে। এজন্য এটা ওজন কমাতে সাহায্য করে। পাশাপাশি কোলেস্টেরলের পরিমাণ ও কমিয়ে আনতে এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

হজম শক্তি বাড়াতে
আখের রসে প্রচুর পরিমাণে পটাসিয়াম এবং ফাইবার রয়েছে। তাই এটি পান করলে কোষ্ঠ কাঠিন্যের সমস্যা দূর হয়ে যায়। পাশাপাশি হজম শক্তি ও বেড়ে যায়।

হৃদরোগ উপশম করে
হার্ট ভালো রাখার পাশাপাশি আখের রস হার্ট অ্যাটাক ঠেকাতে ও সাহায্য করে। এছাড়া শরীরে ক্ষতিকর কোলেস্টেরলের নিঃসরণ কমাতে এটি দারুণ ভূমিকা রাখে ।

আরও পড়ুন: সর্দি জ্বর হলে কি খাওয়া উচিত

ক্যান্সার প্রতিরোধে
আখের রসে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ ও আয়রন। এজন্য এটা প্রস্টেট ক্যান্সার এবং ব্রেস্ট ক্যানসার প্রতিরোধ করতে পারে।

ত্বকের জন্য উপকারী
আলফা হাইড্রক্সি নামক অ্যাসিড আখের রসে থাকায় এটি ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। মুখের বলিরেখা, ব্রণ দূর করতে এর গুনাগুন দারুণ। মুখে মাস্ক হিসেবে যদি আখের রস লাগিয়ে রাখা যায়, তাহলে ত্বকের রুক্ষতা দূর হয়ে যাবে। পাশাপাশি ত্বক হয়ে উঠবে সতেজ এবং আরও বেশি উজ্জ্বল।

এছাড়া ঠাণ্ডা জ্বর, দাঁতের ক্ষয়, গলার ক্ষত ইত্যাদি সারাতে আখের রস সাহায্য করে। এটি জন্ডিসের ওষুধ হিসাবে ও দারুণ কার্যকারী। তাই সুস্থ থাকার জন্য নিয়মিত আখের রস পান করতে পারেন।

আরও পড়ুন: পানিফলের উপকারিতা

ছবি সূত্র: ইন্টারনেট

মন্তব্য
Loading...
error: Content Is Protected !!