পুদিনা পাতার উপকারিতা

বোরহানি বা সুস্বাদু বিরিয়ানি তৈরি করতে পুদিনা পাতার দরকার হয়। স্বাদ বাড়ানো ছাড়া পুদিনা পাতার উপকারিতা কি কি আপনি জানেন? পুদিনা চা, শরবত, সালাদ, চাটনি যেভাবেই খান উপকার পাবেন। পুদিনা পাতার গুণাগুণ নিচে আলোচনা করা হল।

আরও পড়ুন: কাঁচা মরিচের উপকারিতা

পুদিনা পাতা দেখতে ছোট হলেও গুণাগুণ কিন্তু অনেক! প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন এ রয়েছে এই পাতায়। বিষাক্ত প্রাণীর বিষ নষ্ট করার ক্ষমতা রয়েছে পুদিনার পাতায়। পুদিনা পাতা এবং লেবু দিয়ে শরবত বানিয়ে খেলে শরীর ঠান্ডা থাকে।

পুদিনা তাড়াতাড়ি হজম করায়। ক্ষুধা বাড়াবার ক্ষমতাও রয়েছে এতে। তাই খাওয়ায় অরুচি হলে বা ক্ষুধা না পেলে, প্রতিদিন পুদিনা পাতার শরবত খেলে ধীরে ধীরে ক্ষুধা বাড়বে এবং অরুচিও দূর হয়ে যাবে। পুদিনার চাটনি রুচি বাড়াতে সাহায্য করে।

আরও পড়ুন: আলুর খোসার উপকারিতা

পুদিনা পাতা শুকিয়ে নিয়ে পুড়িয়ে সেই ছাই দিয়ে দাঁত মাজলে দাঁত শক্ত হয়। যারা পায়ে গোদ সমস্যা নিয়ে ভুগছেন, তারা সেদ্ধ পুদিনা পাতা বেটে মধুর সাথে মিশিয়ে নিয়ে নিয়মিত খেলে উপকার পাবেন।

সর্দি কাশিতেও পুদিনা দারুণ প্রাকৃতিক ঔষধ। চায়ের সঙ্গে পুদিনা পাতা খেলে ঠান্ডা কমে যায়। পাশাপাশি গলার সংক্রমণ ভাল হয়ে যায়। বাচ্চাদের পুদিনা পাতা বেটে মধু ও লবণ মিশিয়ে ২ মাস খাওয়ালে পেটে কৃমি থাকবে না।

আরও পড়ুন: কালোজিরার গুনাগুন

মধুর সঙ্গে পুদিনা পাতা মিশিয়ে খেতে পারলে শরীরের জমে থাকা ক্লেদ ঘামের সঙ্গে বেরিয়ে যায়। র্মূচ্ছা রোগীকে ৪/৫টা পুদিনা পাতা কচলে শুকিয়ে খাওয়ালে র্মূচ্ছা রোগ সেরে যায়।

পুদিনা পাতার উপকারিতা তো জেনে নিলেন। তাহলে কাঁচা বাজার করার সময় মনে করে কিছু পুদিনা বাসায় কিনে আনতে ভুলবেন না।

আরও পড়ুন: ধনেপাতার উপকারিতা জেনে নিন

Photo Credit: Flickr

আরও পড়ুন