বাসর ঘর সাজানোর নিয়ম

বিয়ের দিন নতুন দম্পতির জন্য ফুলসজ্জা বা বাসর ঘর সাজানো একটা গুরুত্বপূর্ণ কাজ। ফুল দিয়ে বাসর ঘর সাজানোর টিপস এবং বাসর ঘর সাজানোর নিয়ম দেয়া হল। নিচে বাসর ঘর সাজানোর ডিজাইন ছবি গ্যালারি যুক্ত করা হয়েছে। গ্যালারি থেকে ছবি দেখে শিখতে পারবেন বাসর ঘর কিভাবে সাজাতে হয়।

আরও পড়ুন: কম খরচে ঘর সাজানো

বিয়ের পর নতুন দম্পতির একসঙ্গে কাটানো প্রথম রাত বা ফুলসজ্জা তাদের জীবনে কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা মুখে বলে বোঝানো যাবেনা। বিয়ের সকল পরিকল্পনা, কেনাকাটা নিয়ে পরিবারের লোকের সাথে বর কনেও যুক্ত থাকেন।এসব কারনে  বর বা বউ কেউ তাদের ঘরের সাজ সজ্জা নিয়ে কাজ করার সময় পায় না। তাই দম্পতির ভাই-বোন, বন্ধু-বান্ধবীরা তাদের ফুলশয্যার খাট সাজানোর কিছু উপায় বা টিপস জেনে রাখুন।

এক. বাসর ঘর সুন্দর করার জন্য বিছানা থেকে সাজসজ্জা শুরু করুন৷ ফুল দিয়ে বিছানা সাজিয়ে ফেলতে পারেন। নিচে ফুল দিয়ে সাজানো কিছু ছবি দেয়া আছে। নতুন দম্পতিকে সারপ্রাইজ দেবার জন্য চাইলে বিছানার পাশে ফ্রেশ ওয়াইনের একটি বোতল রেখে দিতে পারেন৷ চাইলে নেটের পর্দা দিয়ে ও খাট সাজাতে পারেন৷ তবে খাট সাজানোর সময় অবশ্যই মাথায় রাখবেন আপনার ডিজাইন বা সাজসজ্জা যেন নব দম্পতির জন্য কোন অসুবিধা তৈরি না করে।

আরও পড়ুন: আয়না পরিষ্কার করার উপায়

দুই. যদি নতুন দম্পতির ঘর আপনি একটু ভিন্ন রকম ভাবে সাজাতে চান তাহলে কোনও বিশেষ রঙ বা থিম অনুযায়ী সাজাতে পারেন ঘর। সেক্ষেত্রে ঘরের দেয়ালের রঙের সাথে মিলিয়ে বিছানা চাদর এবং বালিশের কভার ব্যবহার করতে পারেন। ঘরের দেওয়াল গোলাপী বা আকাশী রঙ করে নিতে পারেন।

আরও পড়ুন: তেলাপোকা তাড়ানোর ঘরোয়া উপায়

তিন. যেহেতু ফুলসজ্জা জীবনের একটি বিশেষ দিন সেই কারণেই এই দিনের সাজসজ্জায় কোনও কমতি রাখা উচিত নয় একেবারেই। এই দিনের জন্য ছোট ছোট বিষয় গুলিও খেয়াল রাখা উচিত। যেমন ধরুন ঐ দিন ঘরের আলো খুব জোড়ালো না হয়ে হালকা আলো হয়। ঐ দিনের জন্য ঘরটিকে অ্যারোমা ক্যান্ডেল দিয়ে  সাজিয়ে ফেলতে পারেন৷ এতে ঘরের পরিবেশ অনেকটা রোম্যান্টিক মনে হবে। বিছানায় সাধারণ বালিশের বদল হার্টের মত দেখতে কুশন রাখলে ভাল দেখাবে। আর ফুল ব্যবহার করলে সব সময় খেয়াল রাখবেন যেন দম্পতির কারো কোনও ফুলে অ্যালার্জি আছে কিনা।

বাসর ঘর সাজানোর ডিজাইন ছবি

ছবি ও তথ্য সুত্র: ইন্টারনেট

আরও পড়ুন