চাকরি পাওয়ার দোয়া

চাকরি পাওয়া অনেকের জন্য বেশ কঠিন। চাকরি না থাকলে প্রচণ্ড মানসিক চাপে সময় পার করতে হয়। তাই আপনাদের জন্য কিছু পরীক্ষিত চাকরি পাওয়ার দোয়া নিয়ে আলোচনা করা হল। যেগুলো আমল করলে খুব দ্রুত আপনি চাকরী পেয়ে যেতে পারেন।

আপনি ইন্টারনেটে চাকরি পাবার জন্য অনেক দোআ পেতে পারেন, যেগুলির বেশিরভাগই শুদ্ধ সূত্রে বর্ণিত নয় অথবা দলিল প্রমাণ দ্বারা সাব্যস্ত করা নয়। নিচে কুরআন এবং হাদীসের শুদ্ধ সূত্রে বর্ণিত চাকরি পাওয়ার দোয়া বা আমল তুলে ধরা হলো।

আরও পড়ুন: ঘুষ দিয়ে চাকরি নেওয়া কি জায়েজ

আমল এক

নিম্নে বর্ণিত দোআটি কুরআনে উল্লেখ রয়েছে। যখন হজরত মূসা (আ.) ফিরআউন থেকে পরিত্রাণ খুঁজছিলেন। প্রচণ্ড ক্ষুধার্ত ও ক্লান্ত ছিলেন তিনি। তখন হজরত মূসা (আ.) হাত তুলে আকাশের দিকে তাকিয়ে দোআটি পাঠ করেছিলেন। দোআটি করার সঙ্গে সঙ্গেই আল্লাহ তাআলা হজরত মূসাকে (আ.) এমন প্রাচুর্য দান করলেন, যা দিয়ে তিনি পরবর্তী দশ বছর সুখে শান্তিতে কাটিয়ে দিতে পেরেছিলেন। সেই সঙ্গে তাকে একটি পরিবারও দান করেছিলেন আল্লাহ মহান।

দোআটি হলো :

বাংলা উচ্চারণ – ’ফাছাকা লাহুমা ছুম্মা তাওয়াল্লা ইলাজ-জিল্লি ফাক্বলা রাব্বি ইন্নী লিমা আনঝলতা ইলাইইয়া মিন খাইরিন ফাকীর।’ (কুরআন, সুরা আল-কাছাছ, আয়াত : ২৪)

দোআটির বাংলা অর্থ – সে সময় মূসা তাদের পক্ষে (পশুগুলোকে) পানি পান করিয়ে দিল। তারপর ছায়ায় ফিরে গেল এবং বলল, হে আমার রব, নিশ্চয় আপনি আমার প্রতি যে অনুগ্রহই নাযিল করবেন, আমি তার মুখাপেক্ষী। এই দোআটি সেসব মুসলিমদের জন্য জরুরি, যারা দ্রুত চাকরি পেতে চান অথবা যারা অভাবগ্রস্ত অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন।

আরও পড়ুন: আল্লাহর ৯৯ নাম মুখস্ত করার ফজিলত

আমল দুই

চাকরি পাবার আরেকটি অজিফাও রয়েছে যেটি আপনাকে দ্রুত চাকরি পেতে সাহায্য করতে পারে। সেটি হলো – ইয়া ওয়াহহাবু। বাংলা অর্থ হলো – হে দানকারী। এটি মহান আল্লাহর একটি গুণবাচক নাম।  এই নামটি বারবার পাঠ করলে দ্রুত চাকরি পাবেন ইনশাআল্লাহ।

সূত্র : দ্য ইসলামিক ইনফরমেশন

আপনিও লিখতে পারেন প্রিয়তা অনলাইন লাইফস্টাইল ম্যাগাজিনে। লেখা পাঠাতে পারেন আমাদের info@priyota.xyz মেইলে অথবা মেসেজ করতে পারেন আমাদের ফেসবুক পেজে
আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল আইডি প্রচার করা হবে না। কোন মন্তব্যে স্প্যাম লিংক/রেফারেল লিংক থাকলে সেটা প্রকাশ করা হবে না।

sixteen ÷ = 8