ধুমপান করলে কি ওযু ভাঙ্গে

ধুমপান করলে কি ওযু ভাঙ্গে এটা অনেকের মনে প্রশ্ন জাগে। ইসলামের আলোকে এই প্রশ্নের উত্তর নিয়ে আজকে আলোচনা করা হল। ধূমপান এমন একটি কাজ, যার মাধ্যমে মানুষ নিজেই নিজেকে ধ্বংসের দিকে এগিয়ে নিয়ে যায়। পাশাপাশি এটা অন্যদের কষ্টের কারণ। এজন্য ফকিহরা ধূমপানকে মাকরুহ বলেছেন।

আরও পড়ুন: রক্ত বিক্রি করা কি জায়েজ

এখন প্রশ্ন হচ্ছে, কেউ যদি ধূমপান করে, তা হলে কি অজু ভাঙবে? বা অজুর কোনো ক্ষতি হবে কিনা?

মনে রাখা দরকার অজু ভঙ্গের কারণ ৭টি –

১. মল-মূত্রের রাস্তা দিয়ে কোনো কিছু বের হওয়া (ময়লা, পানি, রক্ত, বাতাস বা অন্য কিছু)।
২. মুখের লালার সঙ্গে রক্ত আসা (লালার সামান বা বেশি, কম হলে অজু ভাঙে না)।
৩. হেলান দিয়ে গভীর ঘুম দিলে।
৪. পাগল হওয়া।
৫. মাতাল বা নেশাগ্রস্ত হওয়া।
৬. জ্ঞান হারিয়ে ফেলা।
৭. নামাজে উচ্চ স্বরে হাসা (জানাজার নামাজে নয়)। মূলকথা, শরীর থেকে কোনো নাপাক বের হওয়া বা বের হওয়ার পরিস্থিতি তৈরি হওয়া।

ধূমপান করলে শরীর থেকে নাপাক বের হয় না এবং বের হওয়ার মত পরিস্থিতিও তৈরি হয় না। তাই ধূমপানে অপরাধ আছে কিন্তু অজু ভাঙে না।

তবে মুখে বিড়ি-সিগারেটের দুর্গন্ধ নিয়ে মসজিদে যাওয়া যাবে না। শরীরের জন্য ক্ষতিকর হওয়ায় এবং অপচয়ের অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় ধূমপান বর্জন করা আবশ্যক।

সূত্র: রদ্দুল মুহতার : ১/১৪৪, ফতোয়ায়ে আলমগিরি : ১/১২, ফতোয়ায়ে হক্কানি : ২/৫১৩)

আরও পড়ুন: ইসলামে কোন কোন নারীকে বিয়ে করা হারাম

আপনিও লিখতে পারেন প্রিয়তা অনলাইন লাইফস্টাইল ম্যাগাজিনে। লেখা পাঠাতে পারেন আমাদের info@priyota.xyz মেইলে অথবা মেসেজ করতে পারেন আমাদের ফেসবুক পেজে
আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল আইডি প্রচার করা হবে না। কোন মন্তব্যে স্প্যাম লিংক/রেফারেল লিংক থাকলে সেটা প্রকাশ করা হবে না।

+ sixteen = twenty five